‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পে অর্থ সাহায্য দ্বিগুণ, কথা রাখলেন মুখ্যমন্ত্রী

FARMER.jpg

কলকাতা: প্রতিশ্রুতি রাখলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় এসে ভাতা বৃদ্ধি করলেন ‘কৃষকবন্ধু’ প্রকল্পে। সাহায্যের পরিমাণ দ্বিগুণ করা হল। এতদিন এক একরের কম জমি থাকলে বছরে দু’হাজার টাকা পেতেন চাষিরা। এ বার পাবেন চার হাজার টাকা। এছাড়া এক একরের বেশি জমি থাকলে এতদিন কৃষকরা পেতেন পাঁচ হাজার টাকা। এখন থেকে পাবেন ১০ হাজার টাকা। মুখ্যমন্ত্রীর এই ঘোষণার পর স্বাভাবিক ভাবেই খুশি রাজ্যের চাষিরা।
পশ্চিমবঙ্গ কৃষি ভিত্তিক রাজ্য হিসেবেই পরিচিত। ফলে কৃষিতে উন্নয়ের ক্ষেত্রে আলাদা করে নজর রয়েছে রাজ্য সরকারের। উন্নতমানের ফসল উৎপাদনে প্রান্তিক এলাকার চাষিদের উপযুক্ত প্রশিক্ষণ থেকে শুরু করে কৃষক বিমা, সরকারি সহায়ক মূল্যে ফসল কেনা, ব্লকে ব্লকে মান্ডি তৈরি করে চাষিদের নানা ভাবে পাশে থেকেছে এই সরকার। এর বাইরে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের উল্লেখযোগ্য প্রকল্প হল কৃষকবন্ধু। এক লপ্তে ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে আর্থিক সাহায্য পাওয়ায় উপকৃত চাষিরা। তবে এ বার বিধানসভা নির্বাচনের আগে রাজ্যের বিভিন্ন জেলায় প্রচারে গিয়ে তৃণমূল নেত্রী প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন, দল ফের ক্ষমতায় এলে বাড়ানো হয়ে কৃষক বন্ধু প্রকল্পের টাকা। আর নির্বাচনের ফল ঘোষণার এক মাস পরেই সেই প্রতিশ্রুতি রাখলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার নবান্নে রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠক ছিল। সেখানেই কৃষকবন্ধু প্রকল্পে দু’ক্ষেত্রে টাকা বাড়িয়ে দ্বিগুণ করার সিদ্ধান্তে সিলমোহর দেয় মন্ত্রিসভা।
উল্লেখ্য, কেন্দ্রীয় সরকারের ‘কিষাণ সম্মান নিধি’ প্রকল্পেও কৃষকদের এককালীন টাকা দেওয়া হয়। এ রাজ্যে নির্বাচনের আগে তা নিয়ে প্রতিশ্রুতিও দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী থেকে বিজেপির অন্যান্য নেতারা। প্রধানমন্ত্রী বলেছিলেন, কেন্দ্রীয় ওই প্রকল্পে বছরে ছ’হাজার টাকা করে পান চাষিরা। কিন্তু গত দু’বছর ধরে এ রাজ্যে তা চালু করা যায়নি। তাই বিজেপি ক্ষমতায় এলে এক সঙ্গে তিন বছরের হিসেবে ১৮ হাজার টাকা সরাসরি কৃষকদের অ্যাকাউন্টে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছিলেন। এমনকী ৬ হাজার টাকা বাড়িয়ে ১০ হাজার টাকা করারও প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন বিজেপি নেতৃত্ব। এ নিয়ে সে সময় তৃণমূলের সঙ্গে সংঘাতও দেখা যায়। কারণ কেন্দ্রীয় প্রকল্পের টাকা পাওয়ার জন্য তালিকা তুলে দেওয়া হয়েছে বলে বার বার দাবি করেছিলেন তৃণমূল। তবে এদিন কৃষক বন্ধু প্রকল্পে টাকা দ্বিগুণ করার কথা ঘোষণার পর বিজেপি নেতৃত্বকে বিঁধতে ছাড়েননি তৃণমূল নেতারা। রাজ্যের শস্যগোলা বর্ধমানের এক তৃণমূল নেতা বলেন, ‘ভোটের আগে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এ রাজ্যে এসে কৃষকদের অ্যাকাউন্টে টাকা দেওয়ার কথা বলেছিলেন। কিন্তু এখন তাঁদের দেখা নেই। আর আমাদের নেত্রী শুধু মুখে বলেন না, বাস্তবে তা করে দেখান।’ যদিও বিজেপি নেতৃত্বের বক্তব্য, কেন্দ্রীয় সরকারও সবরকম ভাবে চাষিদের পাশে রয়েছেন। আন্তর্জাতিক বাজারে সারের দাম বাড়লেও কৃষকদের বোঝা কমাতে কিছু দিন আগেই ভর্তুকি বাড়িয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top