আন্তর্জাতিক স্তরে গবেষণা, পরিষেবায় স্বীকৃতি একঝাঁক বাঙালির

Polish_20210612_013219858.jpg

চিকিৎসক সুজয় ঘোষ

কলকাতা ও পুরুলিয়া: বিজ্ঞান ও চিকিৎসাক্ষেত্রে গবেষণায় শুক্রবার স্বীকৃতি পেলেন বেশ ক’জন বঙ্গসন্তান। একদিকে অন্তঃক্ষরা গ্রন্থি ও ডায়াবেটিসের চিকিৎসায় বিশ্বের অন্যতম সম্মানিত সংস্থা আমেরিকান অ্যাসোসিসেয়শন অফ ক্লিনিক্যাল এন্ডোক্রিনোলজি (এএসিই)-র সম্মান পেলেন পিজি হাসপাতালের চিকিৎসক সুজয় ঘোষ। অন্যদিকে, এডি সায়েন্টিফিক ইনডেক্স ওয়ার্ল্ড সায়েন্টিস্ট অ্যান্ড ইউনিভার্সিটি র‍্যাঙ্কিং ২০২১-এ জায়গা করে নিলেন পুরুলিয়ার সিধো কানহু বিরসা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১ জন অধ্যাপক।

আন্তর্জাতিক স্তরে স্বীকৃতি পেলেন সিধো-কানহো-বিরসা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১ অধ‍্যাপক

চিকিৎসা ক্ষেত্রে বিশেষ ও অনন্য অবদানের স্বীকৃতি হিসাবে ফি বছর সম্মান দেয় এএসিই। তার পোশাকি নাম ‘এএসিই আউটস্ট্যান্ডিং ইন্টারন্যাশনাল ক্লিনিসিয়ান অ্যাওয়ার্ড’। চিকিৎসা জগতে অন্যতম সেরা এই সম্মান এ বার পেলেন এসএসকেএমের এন্ডোক্রিনোলজি বিভাগের শিক্ষক-চিকিৎসক সুজয়। এর আগে ভারতীয় হিসাবে এই সম্মান পেয়েছেন মুম্বইয়ের এন্ডোক্রিনোলজি বিশেষজ্ঞ শশাঙ্ক যোশী।
কেন স্বীকৃতি সুজয়কে? গত কয়েক বছর ধরে এন্ডোক্রিনোলজি ও ডায়াবেটোলজি চিকিৎসায় জনদরদী পরিষেবার পরিচয় দিয়েছেন সুজয়। এ তারই স্বীকৃতি বলে জানাচ্ছে এএসিই-র ওয়েবসাইট। এমআরসিপি, এমআরসিপিএস সুজয়ের উদ্যোগেই এসএসকেএম হাসপাতালে গড়ে উঠেছে পেডিয়াট্রিক ডায়াবেটিস ক্লিনিক, থাইরয়েড ক্লিনিক, প্রেগন্যান্সি ডায়াবেটিস ক্লিনিক, ডায়াবেটিস কিডনি ডিজিজ ক্লিনিক এবং ডায়াবেটিস ফুট ক্লিনিক।
অন্য দিকে, ফি বছর বিশ্বের সমস্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণার নিরিখে বিজ্ঞানীদের অবস্থান বিচার করা হয়। বিশ্ব বিজ্ঞানী এবং বিশ্ববিদ্যালয় র‍্যাঙ্কিং-এর তালিকা মূলত গুগল স্কলার সাইটেশন-এর ভিত্তিতেই তৈরি হয়। সেই তালিকা অনুযায়ী দেখা গিয়েছে, সিধো-কানহো-বিরসা বিশ্ববিদ্যালয়ের ১১ জন বিজ্ঞানী ২০২১-এ এই তালিকায় স্থান পেয়েছেন।
সারা বিশ্বের মোট ১৮১ টি দেশের ১১ হাজার ২৪০ টি বিশ্ববিদ্যালয়ের ৬ লক্ষ ৯৯ হাজার ২১৭ জন অধ্যাপককে নিয়ে এই র‍্যাঙ্কিং হয়েছে। সিধো-কানহো-বিরসা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য দীপক কুমার কর স্বীকৃতি প্রসঙ্গে বলেন, ‘এই সাফল্য অত্যন্ত গৌরবের। আমাদের বিশ্ববিদ্যালয় যে ক্রমশ বিশ্বমানে পৌঁছচ্ছে, এ তারই নিদর্শন। এতে ছাত্রছাত্রী, গবেষকরা আরও অনুপ্রাণিত হবে।’ সিধো-কানহো-বিরসা বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার নচিকেতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথায়, ‘নিঃসন্দেহে এই বিষয়টি অত্যন্ত কৃতিত্বের। প্রত্যেক দিনই আমাদের এই বিশ্ববিদ্যালয় নতুন নতুন সাফল্যের অধিকারী হচ্ছে।’
আন্তর্জাতিক স্তরে স্বীকৃতি প্রাপ্ত এই ১১জন অধ্যাপক হলেন — ডঃ সমীরণ বিশাই, ডঃ নগেন্দ্রনাথ মাহাতো, ডঃ শঙ্কর ভট্টাচার্য, ডঃ সনৎ কুমার মাহাতো, ডঃ দেবাশিস ধক, ডঃ গৌরচন্দ্র মাহাতো, ডঃ বিশ্বনাথ মুখোপাধ্যায়, ডঃ সদরুদ্দিন বিশ্বাস, ডঃ অনুপ প্রামাণিক, ডঃ প্রবোধ কুমার কুইরি এবং ডঃ অমিতাভ মণ্ডল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top