মায়ের চিকিৎসার জন্য বাড়ি যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার কবলে মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা

Polish_20210706_015339134.jpg

বর্ধমান: অসুস্থ মায়ের চিকিৎসা করানোর জন্যে বাড়ি যাওয়ার পথে দুর্ঘটনার কবলে পড়লেন রাজ্যের গ্রন্থাগার মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী। তাঁর গাড়ির চাকা বার্স্ট করায় নিয়ন্ত্রণ হারান চালক। সোমবার বিকেলে দুর্ঘটনাটি ঘটে পূর্ব বর্ধমান জেলার মেমারি-সাতগাছিয়া রোডে মেমারি থানার কামালপুর ব্রিজের কাছে। দুর্ঘটনায় আহত মন্ত্রীকে বাড়িতে পৌঁছে দেওয়া হয়। সেখানেই তাঁর চিকিৎসা চলছে।
এদিন মন্ত্রীর গাড়ির সামনের চাকা আচমকা বার্স্ট করার পর চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে ফেলেন। সেই সময় উল্টো দিক থেকে আসা একটি বোলেরো পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে মন্ত্রীর গাড়িটির মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। তাতে মন্ত্রীর গাড়ির সামনের অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তবে গাড়ির গতি কম থাকায় মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী অল্পবিস্তর আহত হলেও প্রাণে রক্ষা পান। খবর পেয়ে মেমারি থানার পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে পৌঁছে মন্ত্রীকে উদ্ধার করে তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করে। আহত মন্ত্রীকে রাতেই পৌঁছে দেওয়া হয় কাটোয়ার করজগ্রামের বাড়িতে। দুর্ঘটনার কারণ খতিয়ে দেখছে পুলিশ।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, নিজের গাড়িতে চড়ে মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী এদিন বিকাল ৪টে নাগাদ মেমারি-সাতগাছিয়া রোড ধরে কাটোয়ার দিকে যাচ্ছিলেন। পথে কামালপুর ব্রিজের কাছে আচমকা মন্ত্রীর গাড়ির সামনের ডান দিকের চাকা বার্স্ট করে। ওই সময় চালক নিয়ন্ত্রণ হারালে গাড়িটি ডানদিকে ঘুরে গিয়ে মেমারি মুখী একটি বোলেরো পিকআপ ভ্যানের সঙ্গে মুখোমুখি সংঘর্ষ হয়। তাতে মন্ত্রী ও তাঁর গাড়ির চালক এবং বোলেরো গাড়ির চালক আহত হন। বোলেরো গাড়ির চালককে মেমারির পাহাড়হাটি স্বাস্থকেন্দ্রে চিকিৎসার জন্যে নিয়ে যাওয়া হয়।
সিদ্দিকুল্লা চৌধুরী পরে বলেন, ‘আমার মায়ের শরীর খারাপ। মায়ের চিকিৎসা করানোর জন্যে কাটোয়ার বাড়িতে যাচ্ছিলাম। চলন্ত অবস্থায় গাড়ির সামনের চাকা বার্স্ট করে যাওয়াতেই দুর্ঘটনা ঘটে যায়। বড়সড় কোনও আঘাত লাগেনি। হাতে একটু চোট লেগেছে।’
মন্ত্রী আপাতত বাড়িতেই রয়েছেন। সেখানে কাটোয়া মহকুমা হাসপাতালের চিকিৎসকরা এসে তাঁর চিকিৎসাও করেন। বর্তমানে তিনি অনেকটাই সুস্থ রয়েছেন বলে পারিবারিক সূত্রে জানা গিয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.

scroll to top