বিজেপি সমর্থকের বাড়িতে হামলা, জাতীয় মানবাধিকার কমিশন তৎপর হতেই ধৃত ৪

Khandaghosh.jpg

বর্ধমান: বিজেপি সমর্থকের বাড়িতে হামলা, ভাঙচুর ও লুটপাট চালানোর অভিযোগে চার জনকে গ্রেপ্তার গ্রেপ্তার করল পুলিশ। ধৃতরা হলেন রহিম শেখ, শেখ হারুন আলি, সামন্ত মণ্ডল ও নাসিরউদ্দিন মল্লিক ওরফে আনন্দ। বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের খণ্ডঘোষ থানার দৈয়র গ্রামে। এই হামলার ঘটনায় খণ্ডঘোষ ব্লক তৃণমূলের সভাপতি অপার্থিব ইসলামেরও নাম জড়িয়েছে। তবে খণ্ডঘোষ থানার পুলিশ শুক্রবার রাতে ব্লক সভাপতি বাদে চার জনকে বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে। নির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করে পুলিশ শনিবার চার জনকেই বর্ধমান আদালতে পেশ করে। সিজেএম ধৃতদের বিচারবিভাগীয় হেফাজতে পাঠিয়ে মঙ্গলবার ফের আদালতে পেশের নির্দেশ দিয়েছেন।
খণ্ডঘোষের দৈয়র গ্রামে বাড়ি বিজেপি সমর্থক আব্বাসউদ্দিন মিদ্যার। তাঁর অভিযোগ, বিধানসভা ভোটের ফল প্রকাশ হওয়ার পরের দিন তৃণমূলের লোকজন তাঁর বাড়িতে হামলা চালায়। ভাঙচুরের পাশাপাশি লুটপাট চালানো হয়। তাঁর বাড়ি থেকে তিনটি গোরু, সোনার গয়না ও ৮০ হাজার টাকা লুট করা হয়। মারধরের ভয়ে ওই দিনই আব্বাসউদ্দিন ও তাঁর ছেলে ঘর ছাড়া হন। হাইকোর্টের নির্দেশের পর পুলিশ আব্বাসউদ্দিন ও তাঁর ছেলেকে ঘরে ফিরিয়ে দেয়। অভিযোগ, এরপর ২৫ জুন সন্ধ্যায় শাসকদলের লোকজন ফের তাঁর বাড়িতে হামলা চালায়। ভয়ে আবার ঘরছাড়া হন আব্বাসউদ্দিন ও তাঁর ছেলে। তাঁদের না পেয়ে আব্বাসউদ্দিনের স্ত্রী আনুশা মিদ্যা ও মেয়ে রেহেনা খাতুনকে বাড়ি থেকে টেনে নিয়ে গিয়ে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। পরিবারের দাবি, প্রথম দিন হামলার সময় মারধরে আনুশার পা ভাঙে। সেই অবস্থাতেই দ্বিতীয় দিনও মারধর করা হয়।
এদিকে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্যরা এলে নিজের উপর হওয়া অত্যাচারের কথা জানান আনুশা। পাশাপাশি কমিশনের কাছে অভিযোগও জানান তিনি। এর পর কমিশন বিষয়টি দেখার জন্য জেলা গোয়েন্দা দপ্তরকে বলে। গোয়েন্দা দপ্তরের নির্দেশে খণ্ডঘোষ থানা মামলা রুজু করে চার জনকে গ্রেপ্তার করে। হাইকোর্টের নির্দেশে পুলিশ আনুশা এবং তাঁর মেয়ের গোপন জবানবন্দি ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে নথিভুক্ত করায়।
এ প্রসঙ্গে খণ্ডঘোষ ব্লক তৃণমূল সভাপতি অপার্থিব ইসলাম বলেন, ‘হামলার অভিযোগ মিথ্যা। এখন বিজেপি ও জাতীয় মানবাধিকার কমিশন মিলেমিশে একাকার হয়ে গিয়েছে। তৃণমূলের বদনাম করতে ওরা এমন বিভিন্ন জায়গা ঘুরে মিথ্য মামলা রুজু করছে। এ ক্ষেত্রেও তাই ঘটেছে।’

Theonlooker24x7.com সব খবরের নিয়মিত আপডেট পেতে লাইক করুন ফেসবুক পেজ  ফলো করুন টুইটার

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

scroll to top